• মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০২২
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০৮ সকাল

মহানগর: চেনা গল্পের সাহসী উপস্থাপন

  • প্রকাশিত ১০:০৩ সকাল আগস্ট ১৮, ২০২১
মহানগর-ওয়েব সিরিজ
‌মহানগর ওয়েব সিরিজে অভিনয়ের জন্য প্রশংসিত হয়েছেন এর শিল্পীরা সৌজন্য

'মহানগর' এমন কিছু সত্য আমাদের সামনে তুলে ধরেছে যা আমরা জানলেও কেউ কখনও এতটা স্পষ্ট করে সেটা আমাদের সামনে তুলে ধরেনি

এমন অনেক ঘটনা আমাদের চারপাশে ঘটে, পত্রিকায় খবর বেরোয়, আমরা সবাই জানি কিন্তু কখনও সেগুলো সাধারণত আমাদের নাটকে বা শিল্পসাহিত্যে উঠে আসে না। তেমনই এক পরিচিত গল্প “মহানগর”।

ছবিটির গল্প এবং বিষয় নির্বাচনে পরিচালক আশফাক নিপুন সাহসের পরিচয় দিয়েছেন। এজন্য তাকে বাহ্‌বা দিতেই হয়। এমন আরও অনেক গল্প নিয়েই কাজ হওয়া উচিত। 

“মহানগর” এমন কিছু সত্য আমাদের সামনে তুলে ধরেছে যা আমরা জানলেও কেউ কখনও এতটা স্পষ্ট করে সেটা আমাদের সামনে তুলে ধরেনি। গত কয়েক বছরে এমন অনেক আলোচিত অপরাধের ঘটনা ঘটেছে যেগুলোর জন্য থানায় গেলে প্রথমে মামলা নেওয়া হয়নি বা নানা কারণে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেছেন। 

এসব ঘটনা থেকে থানা বা পুলিশের প্রতি সাধারণ মানুষের বিরূপ দৃষ্টি বা নেতিবাচক ধারণা তৈরি হলেও মানুষকে থানায় যেতেই হয়। কারণ অপরাধের বিচারের প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু হয় থানা থেকেই। আপনি যদি ক্ষতিগ্রস্ত হন আপনাকে থানায় গিয়ে অভিযোগ করেই বিচার চাইতে হবে। তাই যতই বিরূপ ধারণা থাকুক না কেন, বিপদে পড়লে বা অন্যায়ের শিকার হলে আমরা থানাতেই যাই, যাব। তাই পুলিশকে হতে হবে অনেক বেশি আন্তরিক এবং জনবান্ধব। 

মনিষী সলোন বলেছেন, “আইন মাকড়শার জালের মত, ক্ষুদ্র কেউ পরলে আটকে যায়, বড়রা ছিঁড়ে বেড়িয়ে আসে।” 

এরকম ছিড়ে বেরিয়ে আসার উদাহরণ আমাদের চারপাশে অনেক রয়েছে। সেরকমই একটি গল্প নিয়ে সাজানো “মহানগর” ওয়েব সিরিজটি। 

পুরো গল্পটাই এক রাতের, একটি থানাকে কেন্দ্র করে। প্রভাবশালী একজন ব্যবসায়ীর সন্তানকে বাঁচাতে নানারকম বুদ্ধি বের করতে থাকেন সেই থানার ওসি হারুন। আর সেজন্য টাকাও নেন মোটা অংকের। হারুন হয়তো সব ম্যানেজ করে ফেলতেন, যদি তার সহকর্মীরাও তার মতই হতেন। কিন্তু এখানে আমরা দেখি এসি শাহানা এবং এসআই মলয়কে। যারা চান অপরাধী যেন বেরিয়ে যেতে না পারে, তার যেন সঠিক বিচার হয়। 

ওসি হারুনের চরিত্রে মোশাররফ করিম পরিমিত অভিনয় করেছেন। যে রকম চিৎকার, চেচামেচি বা হাসি-তামাশা তিনি সাধারণত বিভিন্ন টিভি নাটকে করেন তার থেকে এই চরিত্রটি সম্পূর্ণ আলাদা। আসলে অভিনেতা হিসেবে মোশাররফ করিমের যে সক্ষমতা তার অনেকটাই এখনও পরিচালকেরা ব্যবহার করতে পারেননি। 

মোশাররফ করিম “১০০-তে ১০০” পেয়েছেন। আবার মোশাররফ করিমের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে “এসআই মলয়” চরিত্রে অভিনয় করা মোস্তাফিজুর নূর ইমরানও বেশ ভালো করেছেন। 

ইমরান বরাবরই ভালো অভিনয় করেন। বিশেষ করে “ইতি তোমারই ঢাকা” ছবিতে নুহাশ হুমায়ূনের স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিতে চমৎকার অভিনয় করেছিলেন ইমরান। আরও বেশি সুযোগ পেলে তিনি আরও চমৎকার সব চরিত্র আমাদের উপহার দেবেন বলে আশা রাখি। 

জাকিয়া বারী মম একদম নতুনভাবে নিজেকে প্রকাশ করেছেন। এ ধরনের চরিত্র তিনি আগে করেছেন বলে মনে পড়ে না। চরিত্রের সাথে সাথে নিজের সাজ-সজ্জাতেও পরিবর্তন এনেছেন। 

গল্প এবং অভিনয়ে ফাটিয়ে দিলেও সিরিজটির চিত্রনাট্যে বেশকিছু গোঁজামিল রয়ে গেছে। সিরিজের খুঁত বলতে সেই গোঁজামিলগুলোই।  

“এসি শাহানার” চরিত্রটা যেন হঠাৎ এসে হঠাৎই মিলিয়ে গেল। কিছুক্ষণ পর পর ধমকানো ছাড়া খুব বেশি কিছু এসি শাহানা করতে পারেননি। অথচ এখানে তারই সবচেয়ে বেশি সুযোগ ছিল নিজের ক্ষমতা ও পদবীকে কাজে লাগিয়ে মামলাটাকে সঠিক পথে পরিচালিত করার। 

শুরু থেকেই এসআই মলয় বেশ সক্রিয়। তার চরিত্রটিকে সৎ এবং আন্তরিক পুলিশ অফিসার হিসেবে দেখানো হয়েছে। কিন্তু এই ঘটনায় তাকে আমরা সচল হতে দেখি অনেক পরে এসে। পরীক্ষার আগের রাতে যেরকম অমনোযোগী ছাত্ররা পড়তে বসে, মলয়ের চরিত্রটিও যেন হঠাৎ করে সিরিয়ালের শেষ দুই/এক পর্বে বেশি কাজ করা শুরু করে। একাই সব তথ্য-প্রমাণ যোগাড় করে ফেলে। 

অথচ এই চরিত্রটি সবগুলো পর্বে যদি একটু একটু করে এগোতে পারতো তাহলে চিত্রনাট্যটি আরও জমজমাট হতো। হয়তো মোশাররফ করিমকে পর্দায় বেশি সময় দিতে গিয়ে বাকি চরিত্রগুলো সময় কম পেয়েছে। 

শ্যামল মাওলা খুবই গড়পড়তা অভিনয় করেছেন। কিছু কিছু জায়গায় চরিত্রটি তিনি সঠিকভাবে ফুটিয়ে তুলতে পারেননি। চরিত্রটি আরও হিংস্র এবং ধূর্ত হতে পারত।

সিরিজটিতে সাংবাদিকদের ভূমিকাও খুব সীমিত পরিসরে দেখানো হয়েছে। শুধু থানার সামনে জড়ো হওয়া এবং থানায় আসা লোকজনকে প্রশ্ন করার মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু এই ধরনের আলোচিত অপরাধের ঘটনায় সাংবাদিকরা আরও বেশি অনুসন্ধানী ভূমিকা পালন করে থাকেন। 

সিরিজটির প্রোডাকশন ডিজাইন বেশ গোছানো। পরিমিত অভিনয় সিরিজটিকে উপভোগ্য করেছে। শুধুমাত্র চিত্রনাট্যে কিছুটা কমতি রয়ে গেছে। তবে সব মিলিয়ে “মহানগর” উজ্জ্বল হয়ে থাকবে অনেকদিন।

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail