• বুধবার, ডিসেম্বর ০৭, ২০২২
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০৮ সকাল

নির্বাচনে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নারীকে হত্যা

  • প্রকাশিত ১১:৩৪ সকাল সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১
কুপিয়ে হত্যা-ছুরিকাঘাত
প্রতীকী ছবি

মাত্র ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে হত্যার শিকার হন পারুল বেগম নামের ওই নারী। হত্যার পর প্রতিপক্ষের এনআইডি কার্ডও রেখে আসা হয় পরিকল্পনা অনুযায়ী

ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে জেতার জন্য প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর উদ্দেশ্যে হত্যা করা হয় নিরপরাধ এক নারীকে। মাত্র ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে হত্যার শিকার হন পারুল বেগম নামের ওই নারী। হত্যার পর প্রতিপক্ষের এনআইডি কার্ডও রেখে আসা হয় পরিকল্পনা অনুযায়ী।

নিহত পারুলের বাড়ি মেহেরপুর জেলার গাংনী সিন্দুর কোটা মটমোড়া এলাকায়।

মূলত বাগেরহাটের মোংলা থানার চিলা ইউনিয়নে প্রতিপক্ষ মেম্বারপ্রার্থী বিল্লাল সরদারকে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতার মাঠ থেকে সরাতে একটি লাশ ফেলার পরিকল্পনা করেছিলেন হালিম হাওলাদার (৫২)। এক হিন্দু নারীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন তিনি। সেটা সফল না হলে কোনো রিকশাচালককে বা অন্য কোনো নারীকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। সেই পরিকল্পা থেকেই পারুল বেগমকে হত্যা করা হয়। যদিও পারুলের সঙ্গে সরাসরি পরিচয়ই ছিল না পরিকল্পনাকারী হালিম হাওলাদারের।

রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডে মূল পরিকল্পনাকারীসহ জড়িত তিনজন আসামিকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার দুপুরে ধানমন্ডির পিবিআই সদর দপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পিবিআই প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার।

এর আগে ৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার সাভারের বক্তারপুরে খুন হন পারুল বেগম। সাভার থানা পুলিশ মামলাটি ১১ দিন তদন্তের পর স্ব-উদ্যোগে মামলাটির তদন্ত শুরু করে পিবিআই। মরদেহের কাছ থেকে পাওয়া যায় বিল্লাল সরদার নামের এক ব্যক্তির এনআইডি কার্ড। অথচ তিনি ঘটনাস্থলেই ছিলেন না। পরে গ্রেপ্তার করা হয় বিল্লাল সরদারের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ হালিম হাওলাদারকে।

গ্রেপ্তারের পর হালিম হাওলাদার জানান, ২০ সেপ্টেম্বরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার হিসেবে নিজে জয়ী হওয়ার জন্য প্রতিপক্ষ বিল্লাল সরদারকে ফাঁসানোর পরিকল্পনা করেন। সে অনুসারেই পারুল বেগমকে হত্যার পর বিল্লাল সরদারের এনআইডি কার্ড রাখা হয় ঘটনাস্থলে।

হত্যাকাণ্ডের প্রসঙ্গে পিবিআই প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার বলেন, “জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, আসামি হালিম হাওলাদারের বাড়ি বাগেরহাট মোংলার পশ্চিম মচিলা। বাবার নাম হামিদ হাওলাদার। তিনি মোংলা থানার ৬ নং চিলা ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী বিল্লাল সরদারকে একটি হত্যাকাণ্ডে ঘটিয়ে ফাঁসানোর পরিকল্পনা করেন।”

তিনি বলেন, “খুনি জানতেন না কাকে খুন করতে হবে। খুনের শিকার নারী জানতেন না কেন তাকে খুন করা হলো। শুধুমাত্র প্রভাব বিস্তার, ইউপি নির্বাচনে জেতার জন্য পারুলকে খুনের শিকার হতে হলো। এখানে একটা বিষয় খুবই স্পষ্ট। খুনির পরিকল্পনা ছিল এমন একজনকে খুন করা হবে যে হবে নিম্ন আয়ের মানুষ। তাতে খুনের তদন্ত হলে বিল্লাল ফেঁসে যেতে পারে, তবে নিহত নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে ‘ঝামেলা’ থাকবে না।”

তিনি আরও বলেন, “এটি একটি ক্লুলেস হত্যাকাণ্ড হওয়ায় পিবিআই ঢাকা জেলা স্ব-উদ্যোগে মামলাটির তদন্ত অধিগ্রহণ করে। মামলাটি তদন্তকালে এনআইডি কার্ডের সূত্র ধরে মামলার ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত মূল ঘাতক মো. জামাল হাওলাদার ওরফে সামাদুজ্জামানকে (৫০) গত ২২ সেপ্টেম্বর রাতে ও পরদিন হত্যা পরিকল্পনার সহযোগী দর্জি মাস্টার মশিউর রহমান ওরফে মিলন কবিরাজ (৪৬) মিরপুর দারুস সালাম এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা দুজন আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধি মোতাবেক আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি প্রদান করেছেন।”

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail