• সোমবার, ডিসেম্বর ০৫, ২০২২
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০৮ সকাল

ভাঙন আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটছে পদ্মা পাড়ের মানুষের

  • প্রকাশিত ১১:০৮ সকাল আগস্ট ২৪, ২০২১
ভাঙন আতঙ্ক
ভাঙন আতঙ্কে রয়েছে পদ্মা পাড়ের মানুষেরা ঢাকা ট্রিবিউন

গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানি ২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৫৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে

পদ্মা নদীর পানি অব্যাহতভাবে বৃদ্ধির ফলে বসতভিটাসহ নিম্নাঞ্চল তলিয়ে যাওয়ায় আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটছে পদ্মাপারের মানুষের।

গত ২৪ ঘণ্টায় গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানি ২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৫৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট এলাকায় ঘাটের ১ নম্বর পন্টুন সংযোগস্থল কাঠের সেতুর অগ্রভাগ এলাকায় প্রায় ২০ মিটারজুড়ে পানিতে তলিয়ে গেছে। নদীর পাড় থেকে লঞ্চঘাটের পন্টুনের মাঝে অন্তত ১০০ ফুট জায়গা ফাঁকা হয়েছে। পানির প্রচণ্ড স্রোত কাঠের সেতুতে আঘাত হানছে। এই এলাকায় কয়েক দিন আগে ভাঙন ঠেকাতে পাউবো বালুভর্তি জিও টিউব ব্যাগ ফেলেছিল। এ পর্যন্ত ফেলা অন্তত ৫০০ মিটার এলাকাজুড়ে সব জিও টিউব ব্যাগ তলিয়ে গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, পানিবৃদ্ধির ফলে রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুর, বাহাদুরপর, কালুখালীর কালিকাপুর, রতনদিয়া, হরিণবাড়িয়া, সদরের মিজানপুর, বরাট ও গোয়ালন্দের ছোট ভাকলা, দেবগ্রাম ও দৌলতদিয়া ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি। একই সঙ্গে বিস্তীর্ণ এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় দেখা দিয়েছে গবাদিপশুর খাদ্যসংকট। নষ্ট হয়েছে বীজতলাসহ বিভিন্ন ফসল ও সবজি ক্ষেত।

পদ্মা নদীর পানিবৃদ্ধির ফলে নদীতীরবর্তী নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট, মিজানপুর, খানগঞ্জ, কালুখালীর রতনদিয়া, হরিণবাড়িয়া, পাংশার বাহাদুর ও হাবাসপুর ইউনিয়ন ও গোয়ালন্দের দেবগ্রাম ও দৌলতদিয়া ইউনিয়নসহ ১৩টি ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে ৭ হাজার পরিবার পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। হাঁস-মুরগি, গবাদিপশু নিয়ে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে তাদের। তা ছাড়া এসব এলাকায় দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ খাওয়ার পানির সংকটও।

অন্যদিকে, গত দেড় মাসে রাজবাড়ী জেলা শহর সুরক্ষা বাঁধের নদীর ডান তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার আগেই ৫০০ থেকে ৬০০ মিটার এলাকার সিসি ব্লক ধসে নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এ ছাড়া ভাঙনে দৌলতদিয়ার অন্তত অর্ধশতাধিক বসতভিটাসহ ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙনে হুমকির মুখে রয়েছে লঞ্চঘাটসহ ফেরিঘাট।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৬টার পরিমাপকৃত তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজবাড়ী তিনটি গেজ স্টেশন পয়েন্টের মধ্যে গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া পয়েন্টে পদ্মার পানি ২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৫৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অন্য দুটি পয়েন্টের মধ্যে পাংশার সেনগ্রাম পয়েন্টে পানি ৫ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৭১ সেন্টিমিটার ওপরে রয়েছে। এবং সদরের মাহেন্দ্রপুর পয়েন্টে পানি অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে তিনটি পয়েন্টেই পানি এখনো বিপৎসীমার ওপরে রয়েছে।

পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুল আহাদ বলেন, “পানি এখন থেকে কমতে শুরু করবে। যা বাড়ার তা বেড়েছে। ২৬ আগস্টের পর থেকে পানি কমলেও নদীভাঙনের আশঙ্কা করা যাচ্ছে। ভাঙন প্রতিরোধে আমাদের সব প্রস্তুতি সম্পূর্ণ রয়েছে।”

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সৈয়দ আরিফুল হক বলেন, “রাজবাড়ী জেলার ১৩টি ইউনিয়নে মোট ৭ হাজার ৫১৫ জন মানুষ পানিবন্দি রয়েছে। এর মধ্যে রাজবাড়ী সদরে ১১০০টি, পাংশায় ১২৩০টি, গোয়ালন্দে ১৯৫০টি, কালুখালীতে ৩২০০টি ও বালিয়াকান্দিতে ৩৫টি পরিবার পানিবন্দি।”

এসব মানুষের জন্য প্রতিটি উপজেলায় ২ লাখ টাকার আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সদরে পানিবন্দি মানুষের জন্য ৩৩ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এবং বাকি ৪টি উপজেলায় ২০ টন করে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম বলেন, “আমাদের তালিকা প্রায় শেষ। প্রতিটি উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে আমরা পানিবন্দি মানুষের মাঝে সহায়তা প্রদান করব। বন্যা মোকাবিলায় সব প্রস্তুতি নেওয়া আছে আমাদের।”


50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail