• শনিবার, জানুয়ারি ২৯, ২০২২
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৫৪ রাত

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে থেমে থেমে চলছে যানবাহন

  • প্রকাশিত ০৬:০৩ সন্ধ্যা আগস্ট ১০, ২০১৯
টাঙ্গাইল যানজট
ঢাকা টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট ঢাকা ট্রিবিউন

গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে কালিয়াকৈর, দেউহাটা, টাঙ্গাইলের মির্জাপুর, কাদিমধল্লা, নাটিয়াপাড়া, করটিয়া টাঙ্গাইল শহর বাইপাস, রাবনা বাইপাস, রসুলপুর ও বঙ্গবন্ধুসেতুর পূর্বপ্রান্ত পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে হাজার হাজার যান আটকে আছে

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের টাঙ্গাইল অংশে যানবাহন চলছে মন্থরগতিতে। শনিবার (১০ আগস্ট) ভোর থেকেই থেমে থেমে চলছে উত্তরবঙ্গগামী যানবাহন।

এদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পাঁচবার টোল আদায় বন্ধ করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ। ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়িতে বসে থেকে ঘরমুখী মানুষ রীতিমতো হাঁপিয়ে উঠেছেন। গরমের কারণে বয়স্ক ও শিশুদের অসুবিধাই সবচেয়ে বেশি। 

মহাসড়কের বঙ্গবন্ধুসেতু থেকে মির্জাপুরের গোড়াই পর্যন্ত থেমে থেমে প্রায় ৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম প্রান্তে সিরাজগঞ্জের অংশে চলাচলে অসুবিধা হওয়ার কারণেই এ সমস্যা দেখা দিয়েছে। 

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মহাসড়কের দুটি পয়েন্টে গাড়ি বিকল হয়। পরে সেগুলোকে রেকার দিয়ে সরিয়ে নেয় পুলিশ। এছাড়াও বৃষ্টিপাত ও এলেঙ্গায় দুই লেন সড়কের অবস্থা খারাপ হওয়ায় এসব জায়গায় যানবাহনের গতি কমে যায়। অন্যদিকে, যানবাহনের বাড়তি চাপ এবং চালকদের প্রতিযোগিতা ও খেয়াল খুশিমতো গাড়ি চালানোর কারণে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়।

ছবি: ঢাকা ট্রিবিউনগাজীপুরের চন্দ্রা থেকে কালিয়াকৈর, দেউহাটা, টাঙ্গাইলের মির্জাপুর, কাদিমধল্লা, নাটিয়াপাড়া, করটিয়া টাঙ্গাইল শহর বাইপাস, রাবনা বাইপাস, রসুলপুর ও বঙ্গবন্ধুসেতুর পূর্বপ্রান্ত পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে হাজার হাজার যান আটকে আছে।

সরেজমিনে গিয়ে শনিবার সকাল থেকেই মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। বিকেল পর্যন্তও মহাসড়কের একই অবস্থা রয়েছে। কোথাও কোথাও যানবাহন চলছে কচ্ছপ গতিতে।

রংপুরগামী যাত্রী সাইফুল ইসলাম জানান, চন্দ্রা থেকে টাঙ্গাইলের রাবনা পর্যন্ত আসতে প্রায় ৮ ঘণ্টা সময় লেগেছে। একে যানজটের ভোগান্তি তার ওপর প্রচণ্ড গরম। নারী ও শিশুদের দুর্ভোগ বেশি।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইলের ট্রাফিক পরিদর্শক এরশাজুল হক বলেন, ‘‘সেতুর (বঙ্গবন্ধু সেতু) পশ্চিমপ্রান্তে গাড়ি চলতে না পারায় এখানে যানবাহন আটকে রয়েছে। তবে সব গাড়ি লাইনআপ করে রাখা হয়েছে। টোলপ্লাজা খুলে দিলেই গাড়ি চলবে।”  তবে উত্তরবঙ্গ থেকে ছেড়ে আসা সব যানবাহন সেতু পার হয়ে ঢাকার দিকে যেতে পারছে। ঢাকার পথে তেমন যানজট নেই।

বঙ্গবন্ধু সেতু এলাকায় দায়িত্বরত মধুপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কামরান হোসেন জানান,  ‘‘সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত পাঁচবার টোল আদায় বন্ধ করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ।’’

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, প্রতিবছরই ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। এবার কোরবানির ঈদে একটু বেশি মানুষ বাড়ি ফিরছেন। এই মহাসড়ক দিয়ে দিনে প্রতিদিন প্রায় ৩০-৩৫ হাজার গাড়ি চলাচল করছে। এতোগুলো গাড়ি পারাপারের ক্যাপাসিটি এ সড়কের নেই। চার লেন থেকে দুই লেনে এসে গাড়িগুলো স্লো হয়ে যায়।

50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail