• শনিবার, জানুয়ারি ২৯, ২০২২
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৫৪ রাত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক দুর্ঘটনায় ৩জন নিহত,আহত ১৫

  • প্রকাশিত ০৫:৫৯ সন্ধ্যা আগস্ট ২৯, ২০১৮
বাস দুর্ঘটনা
সিলেট থেকে ঢাকাগামী এনা পরিবহনের যাত্রাবাহীবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদের পানিতে পড়ে যায়। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

বাসটি অপর একটি বাসকে পাল্লা দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গড়িয়ে খাদের পানিতে পড়ে যায়, জানান প্রত্যক্ষদর্শী ও বাসের যাত্রীরা।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার বৈশামোড়া এলাকায় সিলেট থেকে ঢাকাগামী এনা পরিবহনের একটি যাত্রাবাহীবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের জলাশয়ে পরে গিয়ে ৩ জন নিহত এবং ১৫জন আহত হয়েছে। আজ বুধবার দুপুর ২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর এলাকাবাসী এবং সরাইল থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনা স্থলে পৌছে হতাহতদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে প্রেরণ করেন।

দুর্ঘটনায় নিহতদের নাম পরিচয় জানা গেছে। এরা হলেন মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলের রুবীনা বেগম (৫০)ও তার কন্যা সাবরিনা (২৯) এবং ময়মনসিংহ হালুয়া ঘাটের ৭ মাসের শিশু ইয়াসিন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও বাসের যাত্রী শিখা চৌধুরী ও সালেহা বেগম জানান, বাসটি খুব দ্রুতগতিতে চলছিলো। এক পর্যায়ে বাসটি অপর একটি বাসকে পাল্লা দিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গড়িয়ে খাদের পানিতে পড়ে যায়। এসময় তারা কোনক্রমে স্থানীয় জনসাধারনের সহায়তায় বাস থেকে বের হয়ে আসেন। সেই দুঃসহ স্মৃতি আর ভয় তাদের মধ্যে কাজ করছিলো। বলেন, আল্লাহ আমাদের বাঁচিয়ে রেখেছেন।

ঘটনা সর্ম্পকে শাহবাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান রাজিব আহমেদ রাজ্জী জানান, বেপরোয়া গতি ছিলো বাসটির। এছাড়া বৈশামোড়া এলাকায় রাস্তার বাক আর গতিরোধক না থাকার কারণে মহাসড়কে প্রায়শই দুর্ঘটনা ঘটে। আমরা এই দুর্ঘটনাপ্রবণ স্থানে গতিরোধক বসানোর দাবী জানাচ্ছি। 

ফায়ার সার্ভিস ব্রাহ্মণবাড়িয়া অফিসের উপ-পরিচালক ছাফরুল হাসান জানান, দুর্ঘটনার সংবাদ পাওয়ার পরপরই আমরা অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে গেছি। দুর্ঘটনায় আহত রোগীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। দুর্ঘটনা কবলিত বাস এবং পানির নিচে তল্লাসী করেছি কোনো লাশ পাওয়া যায়নি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: রেজাউল কবীর জানান, দুপুর ২টার দিকে এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে সিলেট যাওয়ার পথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরাইল উপজেলার বৈশামোড়া নামক স্থানে অন্য একটি যাত্রীবাহী বাসের সাথে পাল্লাদিতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদের পানিতে পরে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই এক শিশুসহ তিন জন নিহত এবং অপর ১৫জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের মধ্যে দুইজনকে আশংকাজন অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান দুর্ঘটনার স্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় তিনি জানান নিহতদের পরিবার সর্ম্পকে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাহায্য সহযোগীতা করা হবে। 



50
Facebook 50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail